mTunes71.ComLogin Sign Up

ইতিহাসের অভিশপ্ত ও মিশরের সবচেয়ে সুন্দরি রানী নেফারতিতি

In জানা অজানা - 2016-10-10 08:40 pm - Views : 202
ইতিহাসের অভিশপ্ত ও মিশরের সবচেয়ে সুন্দরি রানী নেফারতিতি

পৃথিবী জুড়ে যে ফারাও সম্রাজ্ঞীর প্রহেলিকাময় আবক্ষ মূর্তিটি রয়েছে তিনিই ‘নেফারতিতি’। যার অর্থ ‘সুন্দরীতমা এসেছেন’। মিসরের ফারাও সম্রাজ্ঞীদের মধ্যে, এমনকি তখনকার মিসরবাসীদের মধ্যেও তার রূপ ছিল কিংবদন্তির মতো। যিশুখ্রিস্টের জšে§রও ১৩৭০ থেকে ১৩৩০ বছর আগ পর্যন্ত নেফারতিতির ইতিহাস খুঁজে পাওয়া গেছে। আর ঠিক এরপর থেকেই মিসরের সব ঐতিহাসিক দলিল, দস্তাবেজ থেকে তার নাম মুছে ফেলা হয়েছে। প্রত্নতাত্ত্বিক জিনিসপত্রে তার আর

কোনো চিহ্ন রক্ষিত হয়নি যেমন রক্ষিত রয়েছে অন্যান্য ফারাও আর তাদের সম্রাজ্ঞীদের স্মৃতি। লিখেছেন রেহ্নুমা তারান্নুম
রূপকথার দুঃখিনী রানীর মতো, নেফারতিতি গর্ভে ছয় ছয়টি রাজকন্যের জন্ম দিলেও রাজ্যরক্ষায় কোনো উত্তরাধিকারী রাজপুত্রের জন্ম দিতে পারেননি। ফারাও ‘আখেনাতেন’ ভাবলেন নেফারতিতির গর্ভে আর কোনোদিন ভবিষ্যৎ ফারাওয়ের জন্ম হবে না তাই পরিত্যাজ্য। রাজার ইচ্ছে, তাই রানী পরিত্যক্ত হলেন। ইতিহাসের করালগর্ভে নেফারতিতি হারিয়ে গেলেন চিরদিনের জন্য। এ হলো নেফারতিতির রহস্যময় নীরবতার পক্ষে একশ্রেণীর প্রত্নতাত্ত্বিকদের বিশ্লেষণ।
কেউ কেউ বলেন, বারোটি বছর ১৮তম ফারাও ‘আখেনাতেন’ আর নেফারতিতির গড়ে তোলা বিশাল ফারাও সাম্রাজ্য ‘এল-আমারনা’ (ঊষ-অসধৎহধ) শাসন করে নেফারতিতির রহস্যময়ভাবে হারিয়ে যাওয়া সম্ভবত কোনো কঠিন রোগে তার মৃত্যু। ওই সময় মিসরজুড়ে যে ভয়াবহ প্লেগ হয়েছিল তাতেই মারা গেছেন নেফারতিতি। কেউ বলেন, না; নেফারতিতি মিসরীয়দের সনাতন ধর্মবিশ্বাস বাতিল করে সূর্যদেবতা ‘রে’ (জব)র পূজায় ‘আতেন’ নামে যে সূর্যচাকতির পূজাকে মিসরবাসীদের জন্য বাধ্যতামূলক করেন তারই বিষোদ্গার ঘটে নেফারতিতির মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে তার সমস্ত মূর্তি, স্তম্ভ, প্রাসাদ অর্থাৎ নেফারতিতির বানানো সব সভ্যতার চিহ্নকে ধ্বংস করার মধ্য দিয়ে। এই ধ্বংসযজ্ঞে নেতৃত্ব দেন পুরোহিতরা কারণ ‘আতেন’ কে পেতে হলে ফারাও আর তার স্ত্রীকে (নেফারতিতি) পূজা করাও ছিল বাধ্যতামূলক এটা তারা মেনে নিতে পারেননি। তাই ইতিহাসে নেফারতিতির কোনো উল্লেখ নেই সেই দিন থেকে, যেদিন তার মৃত্যু ঘটে। কেউ বলেন, ১৮তম ফারাও ‘আখেনাতেন’ (যিনি বিখ্যাত কিশোর ফারাও রহস্যময় ‘তুতেনখামেন’ এর পিতা) এর প্রতি প্রজারা সন্তুষ্ট ছিলেন না মোটেও। একে তো পুরনো ধর্মবিশ্বাস নিষিদ্ধ করা হয়েছে তার ওপর রাজধানী ‘মেমফিস’ থেকে সরিয়ে মরুভূমির মাঝে বালুর শহর ‘আমারনা’য় স্থাপন করেন এবং পরে নিজের নামে ‘আখেনাতেন’ রাখেন। তাই ‘আখেনাতেন’-এর মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে নেফারতিতির ভাগ্যও নির্ণীত হয়ে যায়। আখেনাতেনের সৃষ্ট সব কিছু মিসরের বালুতে পুঁতে ফেলার পাশাপাশি নেফারতিতিরও সমাধি ঘটে যায় ইতিহাসে। যদিও এসব বিশ্লেষণের জন্য পর্যাপ্ত প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন নেই তথাপিও যে কিছু কিছু শিলালিপির ভগ্নাবশেষ পাওয়া গেছে নেফারতিতির উপরে লেখা, তা বিশ্লেষণ থেকেই এত্তো এত্তো কাহিনীর জন্ম হয়েছে। এ নিদর্শনগুলো আপনি দেখতে পাবেন বর্তমানের ‘ল্যুভর’ আর ‘বরুকলিন’ জাদুঘরে।
মাত্র পনেরো বছর বয়সে নেফারতিতি বিয়ে করেন চতুর্থ অ্যামেনোফিস (অসবহড়ঢ়যরং ওঠ) মতান্তরে ‘অ্যামেনহোটেপ’ (অসবহযড়ঃবঢ় ওঠ) কে যিনি খ্রিস্টপূর্ব ১৩৫৩ অব্দে ফারাও হিসাবে মিসরের সিংহাসনে বসেছেন মাত্র আর নিজের নাম পাল্টে রেখেছেন ‘আখেনাতেন’।
বিশেষজ্ঞরা নেফারতিতির জন্ম এবং তার নিজ দেশটি আসলে কোথায় এ ব্যাপারে দ্বিধা বিভক্ত। কারো সন্দেহ, যেহেতু নেফারতিতি শব্দের অর্থ ‘সুন্দরীতমা এসেছেন’ তাই আদপেই তিনি মিসরীয় নন, তিনি এসেছেন ভিন কোনো দেশ থেকে। আবার কারো মতে, তিনি মিসরেরই বিখ্যাত ব্যক্তি ‘আই’-এর কন্যা যিনি পরে ফারাও ও হয়েছিলেন। জন্ম বা বংশ বৃত্তান্ত যা-ই থাক তিনি যে সুন্দরী হিসেবে কিংবদন্তি ছিলেন তাতে দ্বিমত ছিল না কারো। সুন্দরীদের প্রভাব পুরুষকে যে নাচাতে পারে, এখানেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। রাজ্যশাসনে ফারাওয়ের পাশাপাশি নেফারতিতিও সমানতালে রাজ্য শাসন করেছেন। শুধু তাই নয়, যে নতুন ধর্ম দু’জনে প্রবর্তন করেছেন তার মধ্যমণি ছিলেন নেফারতিতি। দু’জনেই পুঁজিত হতেন দেবতা আর দেবী রূপে। প্রত্নতত্ত্ববিদ আর ঈজিপ্টোলজিস্টরা থেমে নেই এসব ইতিহাস উদ্ঘাটনে। তারা ‘কারনাক’ আর ‘ল্যুক্সর’-এর মন্দিরগুলোতে খুঁজে বেড়াচ্ছেন এর স্বপক্ষের নিদর্শন। খ্রিস্টপূর্ব ১৪শ’ শতকে নিজ রাজত্বকালে আখেনাতেন সূর্যদেব আতেনের উদ্দেশে তার রাজ্যে যে অসংখ্য মন্দির গড়ে তুলেছিলেন, প্রতিহিংসার রোষানলে তা সবই ধ্বংস করা হয়েছিল তার মৃত্যুর ঠিক পরে পরেই। কারণ এগুলো ছিল মিসরবাসীর পুরনো ধর্মের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতার চিহ্ন। এসব ভগ্ন মন্দিরের পাথরগুলো আবার পরবর্তী ফারাওরা ব্যবহার করেছেন নতুন নতুন মন্দির নির্মাণে। প্রত্নতত্ত্ববিদ আর ঈজিপ্টোলজিস্টরা এখন খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখছেন সেগুলোকে, যদি কোনো অজানা তথ্য পাওয়া যায় সম্রাজ্ঞী নেফারতিতির।

Googleplus Pint
Omith Hasan Pavel
Posts 32
Post Views 11,785